Ultra Protagonist's World

প্রারম্ভিক

আরও কিছু কথা

এখন অন্য দেশে যেতে আর পাসপোর্ট লাগে না ।

লুনেস্তা , পামেলর এসব ফাসপোর্ট ই অনায়াস দেশান্তরের  চাবিকাঠি ।

এক – দু ঢোঁক জল, একটা রোজেরেম  , একটু এলিয়ে পড়া সোফায় –

তারপরেই স্পষ্ট দেখতে পাই

প্রাক্তন প্রেমিকার শ্বাদন্ত ধীরে ধীরে বসে যাচ্ছে জুগিউলার ভেইন-এ ,

অথচ ব্যাথা নেই একফোঁটা –

এও এক অভিযোজন ই বটে !

নাপালি কোস্টে বসেই দিব্যি কুড়নো যায়

হ্যাভ্লকের ঝিনুক ,

হেই ওয়ার্ডস পাঁচ  সহস্রের দিকে চেয়ে মনে হয়  অমূল্য বিগলিত সোনা ,

যেন লাভা ছেঁকে তুলে আনা খাদ থেকে ,

বিন্দুমাত্র খাদ নেই ওতে ।।

রাইটার্স বিল্ডিং কে লন্ডনের ‘ খণ্ডহর’ মনে হয় ;

আরও কিছু পরে দিদির বান্ধবী কে হবু স্ত্রী  ।।

কালান্তরে যেতেও যে পাসপোর্ট লাগে না !

Advertisements

About Anand Sehgal

A graduate researcher, A writer, A poet, A singer, A composer,An actor..............An artist by heart

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Information

This entry was posted on November 30, 2013 by in কবিতা, সমকাল.
%d bloggers like this: