Ultra Protagonist's World

প্রারম্ভিক

ডায়েরীর শেষ দিক থেকে ৫

মাত্র তিন্দিনের মাথাতেই বরফ গলে যেতে  মনটা  খারাপ হয়ে গেল বেজায় ।

ফুটিফাটা পুরনো পাঁচিলের গা’টা এ’ কদিন কতো সুন্দর ছিল ,

কতো মসৃণ ,

আইসক্রিমের আধুনিক ফ্লেভার ছিল ওতে ।

 

নিসর্গ  অলীক- অবাস্তব হোক বা ক্ষণস্থায়ী –

সারপ্রাইজ পেতে এখনো ভালো লাগে বেশ । 

 

বাস্তবতা  অনেক হল ,

সেই ‘ বোরবন -রঙা  বাস্তব’  নিয়েই তো আছি  । 

 মানুষ তো  !  একঘেয়ে হয়ে গেছে ।

 শুধু রোদ যদি  তাপহীন  হতো আজকের মতো ,

আর ওই একটু অ্যান্টি – গ্র্যাভি টি  –

 

গড়িয়ে নেমে আসা জল ফিরে গিয়ে

ফের  বরফ হতো ,

নিস্তব্ধতা নিষ্পাপ ,  মোলায়েম হতো আবারো ।

Advertisements

About Anand Sehgal

A graduate researcher, A writer, A poet, A singer, A composer,An actor..............An artist by heart

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Information

This entry was posted on January 31, 2014 by in কবিতা, সমকাল.
%d bloggers like this: