Ultra Protagonist's World

প্রারম্ভিক

ডায়েরীর শেষ দিক থেকে ১০

তোমার বাড়িতে যাওয়া পথগুলো
বেঁকে গিয়ে খোঁজে চায়ের দোকান ;
তুমি আছ ওই না থাকারই মতো ,
মনের ঠিকানা এখান-সেখান ।

গল্প করার জগার’স পার্কটা
ভালবাসাদের ভালো বাসা দেয় ;
আমাদের কাজ আমাদেরই , তবু
কম ভিড় চান ‘কম-নামী খান ‘ ।।

আমার হ্যাঁয়েতে তুমি ‘না’ না’হলে
পার্কের লেক ছায়াঘন হতো ;
ঠোঁটে লালরঙ কম হলে বা কি ,
লজ্জা আছে তো, তোমার দু-কান !

Advertisements

About Anand Sehgal

A graduate researcher, A writer, A poet, A singer, A composer,An actor..............An artist by heart

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Information

This entry was posted on April 19, 2014 by in কবিতা, সমকাল.
%d bloggers like this: