Ultra Protagonist's World

প্রারম্ভিক

কিছু বাজে কথা

আমাকে দিয়ে বোধহয় আর বেশী কিছু হবে না , আমাকে দিয়ে আর বিশেষ  কিছুই হবে না – এই ভাবনা  আমার আজকের নয় , বেশ ক’দিনের পুরনো । কিন্তু অদ্ভুত এক উপায়ে কি করে যে গড়িয়ে গড়িয়ে  এগিয়ে চলেছি তা ভাবলে একেক সময় নিজেরই ভীষণ অবাক লাগে । মেহনত , সিনসিয়ারিটি  – যেগুলোকে কচি বয়সে এসেনশিয়াল কোয়ালিটি বলে জানতাম , তার সবকটাই ঠাকুর ভাসানের সময়েই ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছিল স্মরণাতীত কোনও এক কালে । মাঝে মাঝে মনে হয় কোথাও যদি খানিকটা ডিপ্রেশন থাকে সারফেসে তাহলেই আমি গেছি । একবার পড়লে আর  ওঠবার  সম্ভাবনা অতি ক্ষীণ  । সেজন্যে যেটা জরুরি তা হল নিজেকে পিচ্ছিল করে রাখা । সে ক্ষেত্রে অ্যাকটিভ পাঁকাল মাছের পঙ্কিল মসৃণতা ও দ্রুততা  গতি জাড্যের খুব ভালো উদাহরণ কিনা সে নিয়ে ভাবার মতো অল্প গভীর পড়াশোনাও এখন আর আমার মধ্যে অবশিষ্ট নেই  । তবে বেঁচে থাকতে  পড়াশোনা লাগে – এই বিশ্বাসের  মূলেও এই ক’বছরে কম আঘাত লাগেনি । এবং বেঁচে থাকার জন্যে এটাই শেষ আশা ভরসা বলা চলে ।

Advertisements

About Anand Sehgal

A graduate researcher, A writer, A poet, A singer, A composer,An actor..............An artist by heart

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Information

This entry was posted on April 29, 2014 by in মুক্তগদ্য, সমকাল.
%d bloggers like this: