Ultra Protagonist's World

প্রারম্ভিক

ভাবনাচিন্তা (৫)

সার্বিক বঞ্চনা হলে,মনে চাপা কষ্ট হলে আচার্য জগদীশচন্দ্র বসুর কথা স্মরণে আনার চেষ্টা করি। জীবন অনেক সহজ হয়ে যায় । কষ্ট , মনের ক্ষত যে কতো বড় উদ্দীপনা হতে পারে তা উনি দেখিয়ে গিয়েছেন । জগদীশ চন্দ্র ভারত মহাসাগর হলে , আমি একটি এক লিটারের জগ বা তারও কম – হয়তো গ্লাস – কাপ- খুরি – পলা বা বিন্দু । কিন্তু ভালো কাজের , বড় কাজের , মহান উদ্যোগের এটাই চিরন্তন স্পিরিট । কোনও ক্ষতিতেই কিছু না এসে যাওয়াটাই উত্তরণের মূল রহস্য । এ কথা বলে ফেলা সোজা , কিন্তু আচরণ করা অতি কঠিন । কারণ ক্রমে ক্রমে এর থেকে নিঃস্পৃহ , নিরুৎসাহিত এবং জীবন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবার ভয় থেকে যায় । মহান মানুষদের নিক্তিতে মাপা ব্যাল্যান্স-এর জন্যেই বোধ হয় তাঁরা মহান । জীবনের ঠিক কোনখানে ধরতে হবে এবং ধরেই থাকতে হবে আর কোথায় ঢিল দিলেও চলে , আর কোথায় বা গোটাগুটি ছেড়ে দেওয়াটাই যুক্তিযুক্ত – এই ব্যাপার গুলিই “লঞ্জিভিটি” নির্ধারণ করে ।

Advertisements

About Anand Sehgal

A graduate researcher, A writer, A poet, A singer, A composer,An actor..............An artist by heart

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Information

This entry was posted on December 16, 2015 by in ছোট নিবন্ধ, সমকাল, Uncategorized.
%d bloggers like this: