Ultra Protagonist's World

প্রারম্ভিক

নাইটস্কোপ ৩

একাকিত্বের অধিকাংশ রাত

প্রবাসের নিঃসঙ্গতায় চিরন্তন হাতছানির সারমেয় – ধ্বনি খোঁজে

নিরন্তর ,

মন সড়কের আদিম , উন্নয়নহীন অলি – গলিতে কান পাতে ।

শ্বাপদকণ্ঠ  পূত শঙ্খনাদে উত্তীর্ণ হয় এক অমোঘ মুহূর্তে ;

প্রার্থনায় , চাহিদায় ।

নিজ গর্ভ থেকে উঁকি দিয়ে  ভালো না বাসা,

ভালো না লাগা বহু জিনিসকে ক্রমশ  আত্মস্মাৎ করে নিশীথ ।

নিশ্চিত বর্জ্য অঙ্গ হয়ে ওঠে , কালক্রমে স্বাস্থ্যও ।

সাস্থ্যপানে ধমনী কম্ব্যস্ত হয় ,

বা হয়তো কর্মব্যস্ততা ভ্রমেরই রুপভেদ মাত্র ,

চারকোল – গ্রাফাইট তুতো সম্পর্ক – ধূসর কালো ।

সন্তর্পণে ধমনীতে উঠোন আবছা করা সন্ধ্যে প্রবেশ করে ,

এক সময় সন্ধেতে অতিথি হয় রাত্রি ,

রাতের দরজাতে মৃদু টোকা যার , তিনি আগন্তুক ;

আগন্তুকে পরিপূর্ণ দুরনিবার ক্লান্তি ,

ক্লান্তিতে অনিবার্যের নাম বিস্মৃতি ।

শুধু মনে থাকে তিরতির শব্দ –

কখনো ক্ষীণ , কখনো বা খানিক জোরে ,

জল, সময়, ঘটনা সবই প্রবাহিত হয় ।

Advertisements

About Anand Sehgal

A graduate researcher, A writer, A poet, A singer, A composer,An actor..............An artist by heart

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

Information

This entry was posted on December 22, 2015 by in কবিতা, সমকাল, Uncategorized and tagged .
%d bloggers like this: